বিশেষ প্রতিনিধি: কক্সবাজার

কক্সবাজারের কলাতলী ‘ওয়ার্ল্ড বীচ রিসোর্ট’ এর একটি কক্ষে ইয়াবা ট্যাবলেট সেবনের সময় রমজানুল আলম (৪০) ওরফে রমজান সওদাগরকে আটক করেছে সদর থানা পুলিশ। এসময় একটি ব্রান্ডের প্রাইভেট কারও জব্দ করা হয়েছে। ইয়াবা সেবনের কক্ষ ও প্রাইভেট কার তল্লাশী করে পাওয়া গেছে ৮০ পিচ ইয়াবা।
আটক রমজান ঈদগাও ১ নম্বর ওয়ার্ড মাইজপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল গণির ছেলে।
আজ বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) ভোরে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে পুলিশ।
বিষয়টি নিশ্চিত করে কক্সবাজার সদর থানার ওসি অপারেশন মাসুম খান বলেন, ‘কলাতলী ওয়ার্ল্ড বীচ রিসোর্টের দ্বিতীয় তলার একটি কক্ষে ইয়াবা ট্যাবলেট সেবনের পাশাপাশি পতিতা নিয়ে ফূর্তি করছে; এমন সংবাদ পাওয়ার পর বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) ভোরে অভিযান চালানো হয়। অভিযানের বিষয়টি টের পেয়ে পতিতাসহ কয়েকজন পালিয়ে যায়। অন্যরা পালিয়ে গেলেও ইয়াবা সেবনের সময় আটক হন রমজান। রমজানের দেহ তল্লাশি চালিয়ে প্রথমে ৩০ পিস ইয়াবা পাওয়া যায়। পরে তার স্বীকারোক্তি মতে রিসোর্টের নিচে তার গাড়ি থেকে আরো ৫০ পিচ ইয়াবা পাওয়া যায়।

পুলিশ জানায় সে স্বীকার করেছে, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দীর্ঘদিন ধরে চাকরি করার আড়ালে ইয়াবা ট্যাবলেট পাচার ও সেবনে জড়িত রয়েছে। নিয়মিত তার ব্যক্তিগত গাড়িযোগে ইয়াবা পাচার করত সে।
সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা কারবারে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে রমজানের বিরুদ্ধে। এমনকি সম্প্রতি সময়ে ইয়াবার টাকায় সে কক্সবাজারের ঈদগাও বাজার প্রায় ৯৩ লাখ টাকায় ইজারাও নিয়েছে। আর.এন এন্টারপ্রাইজের নামে দিয়ে এই বাজার ইজারা নেন রমজান। কক্সবাজার যুবলীগের শীর্ষ পর্যায়ে কয়েকজনের নাম ব্যবহার করে আর.এন এন্টারপ্রাইজের আড়ালে ইয়াবার টাকায় বিভিন্ন ইজারাদারের কাজ করছে বলেও অভিযোগ রয়েছে এই রমজানের বিরুদ্ধে।
কক্সবাজার সদর থানার ওসি শাহজাহান কবির বলেন, ‘রমজান একজন ইয়াবা কারবারি। তার সাথে অনেকেই জড়িত রয়েছে। আটকের পর অনেক কিছু তথ্যও পাওয়া গেছে। রমজানের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) বিকালে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হবে তাকে।’

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন