পাঁচ হাজার বছরের পুরনো পরিকল্পিত শহরের সন্ধান!

0
116

অনলাইন ডেস্ক:

ইসরায়েলে ৫ হাজার বছরের পুরনো এক শহরের সন্ধান মিলেছে। শহরটি ওই অঞ্চলে অবস্থিত পুরা কীর্তির মধ্যে সবচেয়ে বড়। ইসরেয়েলের শ্যারন অঞ্চলে রাস্তার নির্মাণকালে প্রাচীন এ শহরটির সন্ধান মিলেছে বলে জানি ইসরায়েল পুরাকীর্তি বিভাগ। খবর এএফপির।

ইসরায়েলি পুরাকীর্তি বিভাগের পরিচালক যিতজক পাঁজ এএফপিকে বলেন, শহরটি এখন পর্যন্ত আবিষ্কৃত ব্রোঞ্জ যুগের অন্যতম বড় নিদর্শন। অত্যন্ত পরিকল্পিত এ শহরের চারদিক ছিল দেয়াল ঘেরা। এর ভেতরে ছোট বড় আবাসিক এলাকা, পরিকল্পিত রাস্তা, গলি ও মন্দির ছিল। ব্রোঞ্জ যুগের অত্যন্ত পরিকল্পিত শহরটির আয়তন প্রায় সাড়ে ৬ লাখ বর্গকিলোমিটার। যা ইসরায়েল, লেবানন কিংবা সিরিয়ায় প্রাপ্ত পুরাকীর্তিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বড় বলে দাবি করেন পাঁজ।

মন্দিরের মাটি খনন করে মানুষ এবং পশুর মুখের বিরল মুর্তি পাওয়া গেছে। তাছাড়া একটি পাথরের গামলায় পশুর হাড়ে পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে হাড়গুলো মন্দিরে বলি দেয়া পশুর। এছাড়া অস্ত্র হিসেবে ব্যবহৃত হতো এমন কাঠের তৈরি মুগুর, পাথরের নানান সরঞ্জাম ও আগ্নেয় শিলা উদ্ধার করা হয়েছে।

শহরের প্রাপ্ত নিদর্শন দেখে তখনকার মানুষের জীবনাচরণ সম্পর্কেও ধারণা পাওয়া গেছে। ইসরায়েল পুরাকীর্তি বিভাগের ধারণা ওই শহরে ৬ হাজার লোকের বাস ছিলো। এর বাসিন্দারা কৃষিকাজ ও ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করতো। আড়াই বছর ধরে চলা এ খনন কাজে ৫ হাজার তরুণ ও স্বেচ্ছাসেবী অংশগ্রহণ করে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন